নেপালে বন্যায় ১৬ জনের প্রাণহানি, নিখোঁজ ২২

নিউজ ডেস্কনিউজ ডেস্ক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৮:১৫ PM, ১৯ জুন ২০২১

নেপালে বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হয়েছে। ভারি বর্ষণে সৃষ্ট বন্যা ও ভূমিধসে গত এক সপ্তাহে দেশটিতে ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতদের মধ্যে তিন জন বিদেশি নাগরিক রয়েছেন। এখনও নিখোঁজ রয়েছেন ২২ জন। নেপালের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, অতি বন্যার কবলে পড়েছে দেশটির ৬টিরও বেশি জেলা। দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ায় ব্যাহত হচ্ছে সেখানকার স্বাভাবিক জনজীবন।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জনকরাজ দহল জানান, বন্যায় বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে লামজং, মায়াগদি, মুস্তাং, মানং ও পালপা জেলা। এই মুহূর্তে দূর্গত এলাকায় উদ্ধার অভিযান ও খাদ্য সরবরাহে বেশি নজর দিচ্ছে সরকার। তিনি বলেন, নিহতদের পাশাপাশি ১১ জনের আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

নেপালের সিন্ধুপালচোক জেলায় রাতভর ভারি বর্ষণের ফলে তৈরি হয় আকস্মিক বন্যা। এতে নিখোঁজ হয়েছেন সাতজন। দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা দিল কুমার তামাং জানান, বন্যায় মেলামচি নদীর পানিতে বেশ কিছু ঘরবাড়ি প্লাবিত হয়েছে। ক্ষয়ক্ষতি সম্পর্কে বিস্তারিত জানার চেষ্টা করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

প্রতিবর্ষায় মানুষের জীবন বাঁচাতে নানা পদক্ষেপ নেয় নেপাল সরকার। দুর্যোগপূর্ণ এলাকার বাসিন্দাদের সরে যেতে বলা হয় নিরাপদ স্থানে। তবুও যেন ঠেকানো যাচ্ছে না প্রাণহানি। দেশটিতে প্রতি বছরই বন্যা ও ভূমিধসে শতাধিক মানুষের মৃত্যু হয়।

এবার নেপালকে আগে থেকেই সতর্ক করে আসছিলেন দক্ষিণ এশিয়ার কয়েকজন আবহাওয়াবিদ। তারা বলে আসছিল এবছর আগেই বর্ষা শুরু হবে নেপালে। সে অনুযায়ী ১ জুন থেকেই দেশটিতে শুরু হয়েছে প্রবল বৃষ্টি। এতে পানি বৃদ্ধির পাশাপাশি শুরু হয়েছে ভূমিধস। নেপালে প্রবল বৃষ্টিপাত ও ভূমিধস থাকতে পারে আরও তিন মাস।

আপনার মতামত লিখুন :